এখন আর ডাক্তার হওয়ার ইচ্ছা নেই-দীঘি

আপডেট: ২৯ নভেম্বর ২০১৮, ১৩:৪৮

এক সময়ের চলচ্চিত্রের শিশু তারকা দীঘি এখন বড় হয়েছেন। তবে তিনি এখন আর চলচ্চিত্রে অভিনয় করেন না। পড়াশোনা নিয়েই ব্যস্ত। সামনে এসএসসি পরীক্ষা দেবেন। এ নিয়েই তার ব্যস্ততা। দীঘি জানান এখন আমার সব মনোযোগ পড়াশোনা নিয়ে। পরীক্ষার দুই মাস বাকি, তাই লেখাপড়ার দিকেই এখন আমার মনোযোগ। চলচ্চিত্র বা অভিনয়ে ফিরবেন কিনা, এমন প্রশ্নের জবাবে দিঘী বলেন, আমার পরিবারের পক্ষ থেকে চাচ্ছে, যখন ফিরব তখন যেন নায়িকা হয়েই ফিরি। আমারও ইচ্ছা নায়িকা হিসেবে ফেরার। পরীক্ষা শেষ হওয়ার পর এ নিয়ে চিন্তা করব। আর আমার ইমেজ তো শিশু শিল্পী হিসেবে। এ ইমেজ ভেঙে আমাকে ফিরতে হবে। যখন আবার ক্যামেরার সামনে দাঁড়াবো তখন বুঝতে পারবো, আমি কতটা বড় হয়েছি। তবে এ মুহূর্তে আমি পড়াশোনা নিয়েই ব্যস্ত। তবে মিডিয়াতে যখন ফিরব, বুঝেশুনেই ফিরব। আমার শুরুটা ছোটপর্দা দিয়ে, সেখান থেকেই দর্শকপ্রিয়তা পেয়েছি। মডেলিং আমার প্রথম পছন্দ, খুব ভালো লাগে। আর সিনেমা করে তিন-তিনটি জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার পেয়েছি, সেক্ষেত্রে চলচ্চিত্র থাকবে আমার কাছে প্রথম গুরুত্ব। দীঘির মায়ের স্বপ্ন ছিল সে ডাক্তার হবে। এ ব্যাপারে দীঘি বলেন, এখন আর ডাক্তার হওয়ার ইচ্ছা নেই। যেহেতু মা বেঁচে নেই, তাই ডাক্তার হওয়ারও স্বপ্ন নেই। তবে চলচ্চিত্রের কাজের পাশাপাশি আমার লেখাপড়ার গুরুত্ব অবশ্যই থাকবে। অভিনয়ে চরিত্র নির্বাচনের ক্ষেত্রে দীঘি বলেন, যখন অভিনয় শুরু করবো তখন দেখে বুঝে চরিত্র নির্বাচন করবো। আমি কখনো স্ক্রিপ্ট পড়ে ঠিক করি না, আগে মা-বাবা স্ক্রিপ্ট পড়ে যা ঠিক করে দিতেন আমি তাই করতাম। এখন বাবা আছেন উনি দেখে যেটা ভালো মনে করবেন আমি সেটাই করবো।